জেলার খবর

ভারতে পাচারকালে বিরামপুর সীমান্তে নারী ও শিশুসহ ৩৬ জন আটক

valo sangbadবিরামপুর (দিনাজপুর): দিনাজপুরের বিরামপুর সীমান্তপথে দালালদের মাধ্যমে ভারতে পাচারকালে ৩৬ নারী-শিশুকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। পরে আটকদের বিরামপুর থানায় সোপর্দ করেছে বিজিবি। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। মামলাসূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার বিকেলে বিরামপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী খিয়ারমামুদপুর গ্রামের সীমান্ত পিলার ২৯১/২৫-এস হতে ২৫০ গজ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে শাহার আলী ও সোহেল রানার বাড়ির খুলিতে জড়ো হওয়া ওইসব ব্যক্তিদের সন্দেহাতীতভাবে ভাইগড় বিওপি-২০ বিজিবি সদস্যরা আটক করে।
আটককৃতরা হলেন, নওগাঁর আত্রাই উপজেলার বাঁকাগ্রামের বিমল চন্দ্র, শ্রীমতি আলো রানী, ভক্তি রানী, নারায়ণ চন্দ্র, দয়াল চন্দ্র রায়, ববিতা রানী, রতন সরকার, পুর্ণিমা রানী, মিলন চন্দ্র, আলো চন্দ্র, হৃদয় চন্দ্র, নমিতা রানী, আদরী রানী, একই উপজেলার সিংসারা গ্রামের ধীরেন চন্দ্র, সরস্বতী রানী, বীরেন চন্দ্র প্রামাণিক, নওদুলি গ্রামের জয়দেব কুমার, চম্পা রানী, মহাদেবপুর উপজেলার চেরাগপুরের কিনার প্রামাণিক, গৌরী রানী, উৎপল চন্দ্র রায়, কাজল রানী, টাঙ্গাইলের বনিকিশোরী গ্রামের পলাশ চন্দ্র রায়, আশা সরকার। এছাড়া তাদের সাথে বিভিন্নজন বয়সের ১১ জন শিশু রয়েছে।

আটককৃতরা জানান, তারা সকলে জীবিকার উদ্দেশে ভারতে যেতে চেয়েছিলেন। বাংলাদেশ থেকে সীমান্তপথে ভারতে যাওয়ার জন্য  তারা বিরামপুরের খিয়ারমাহমুদপুর গ্রামের বাসিন্দা শুকুর আলী, সোহেল রানা ও শাহার আলীকে টাকা দেন। তারা তাদেরকে রাতে ভারতে পারাপারের ব্যবস্থা করে দেবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন।

এ বিষয়ে বিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান মনির জানান, বিরামপুরের খিয়ারমামুদপুর সীমান্ত থেকে ৩৬ জন নারী ও শিশুকে আটক করে বিরামপুর থানায় সোপর্দ করে ২৮ জনের নামে মামলা করেছে বিজিবি। তবে পলাতক আসামি শাহার আলী, সোহেল রানা ও শুকুর আলী সরকার এ ঘটনার সাথে জড়িত আছে তা সুষ্ঠু তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
ওসি আরো জানান, বুধবার দুপুরে আটককৃতদের দিনাজপুর আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে পাঠানো হয়েছে।

মাধ্যম
নূরে আলম সিদ্দিকী নূর

এমন আরো সংবাদ

Back to top button