প্রবাসহাইলাইটস

বৃটেনে চেষ্টার সিটির ডেপুটি মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশী শিরিন আক্তার

মিশর থেকে গত ১৯শে মে রবিবার যুক্তরাজ্যের চেষ্টার সিটি মেয়র অফিস হলে ডেপুটি মেয়র হিসেবে শপথ গ্রহন করলেন প্রথম বাংলাদেশি নারী, সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার উত্তর ধর্মদা গ্রামের শাহ হুশিয়ার উল্ল্যা ও পারভীন আক্তার দম্পতির দ্বিতীয় কন্যা শিরিন আক্তার। এর আগে ২০২৩ সালের ৪ই মে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে লেবার পার্টি থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করে  ‘চেস্টার সিটির আপটন’ এলাকা থেকে প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি।
 প্রথম বারের মতো কাউন্সিলার বিজয়ী হওয়ার পর থেকেই চেষ্টার সিটি কাউন্সিলের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন শিরিন। চেষ্টারের ইতিহাসে প্রথম বাংলাদেশী ডেপুটি মেয়র হয়েছেন, কেমন লাগছে? এমন প্রশ্নের জবাবে এই প্রতিনিধিকে শিরিন জানান, চেষ্টার সিটির ইতিহাসে আমিই  প্রথম বাংলাদেশী মুসলিম ডেপুটি মেয়র নির্বাচিত হয়েছি। এতে আমি  অনেক অনেক খুশি। দোয়া করবেন আমি যেনো ভালোভাবে কাজ করে যেতে পারি। রাজনীতির পাশাপাশি কমিউনিটির নানা কাজ সফলভাবে যেন সম্পন্ন করতে‌ পারি।
ব্রিটেনের মূলধারার রাজনীতিতে তরুনদের আসার আহবান জানিয়ে শিরিন আক্তার আরো বলেন, আমার মতে তরুণদের রাজনীতিতে আসা দরকার। তারা এলে ভালো করতে পারবে বলে আমার বিশ্বাস। আমাদের কমিউনিটি থেকে আরো কাউন্সিলার দেখতে চাই। যা কিছু সহযোগিতা লাগে আমি করব। বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত শিরিন আক্তারের জন্ম যুক্তরাজ্যে হলেও ছোট বেলায় তিনি বিশ্বনাথের মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুই বছর লেখাপড়া করেন। পরবর্তীতে বাবা-মায়ের সাথে যুক্তরাজ্যে পাড়ি জমান এবং সেখানে মাস্টার্স সম্পন্ন করেন।
বর্তমানে তিনি সেখানে বিভিন্ন সামজিক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত রয়েছেন। এছাড়া শিরিন আক্তারের নির্বাচনী প্রচারণায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতনী রেজওয়ানা সিদ্দিক টিউলিপসহ বাঙালি কমিউনিটির বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করে ছিলেন। শিরিন আক্তার যুক্তরাজ্যে ডেপুটি মেয়র নির্বাচিত হওয়ায় বাঙালি কমিউনিটির পাশাপাশি নিজ জন্মভূমি বিশ্বনাথ তথা সিলেটে থাকা আত্মীয় স্বজনদের মধ্যেও আনন্দের বন্যা বইছে।

এমন আরো সংবাদ

Back to top button