শিক্ষা

বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির প্রচারে ডিজিটাল কুইজ প্রতিযোগিতার মাধ্যমে মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করলো ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি

BRAC University Press Release 25-02-2024 ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি বাংলা ভাষার সমৃদ্ধ ঐতিহ্যকে সম্মান জানাতে ডিজিটাল মাধ্যমে বিশেষ অনলাইন প্রতিযোগিতাসহ একাধিক আকর্ষণীয় কর্মসূচীর মাধ্যমে মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন করেছে। ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি অ্যাকাডেমিক উৎকর্ষ সাধন এবং সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য প্রচারে নিবেদিত নেতৃস্থানীয় একটি প্রতিষ্ঠান।

 

বাংলা ভাষার অধিকার আদায়ে ভাষা আন্দোলনে জীবন উৎসর্গকারী বীর শহিদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ২১শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন করতে “বাংলা আমার অহংকার” ডিজিটাল কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি। অনলাইনে এই কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় যেখানে কয়েক হাজার শিক্ষক-শিক্ষার্থী-স্টাফ অংশগ্রহণ করেন। রোববার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ এই কুইজ প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

বিশ্ববিদ্যালয়ের সবাই যেন বাংলা ভাষা, সাহিত্য, ইতিহাস ও সংস্কৃতিকে আরো ভালোভাবে বুঝতে পারে এবং শ্রদ্ধা জানাতে পারে সেই লক্ষ্যেই এই কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছিল ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি। কুইজে অংশগ্রহণকারীদের প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এবং চিত্তাকর্ষক বিভিন্ন প্রশ্নের মাধ্যমে আত্মপরিচয় এবং ঐতিহ্যের বিভিন্ন দিক নিয়ে প্রশ্ন করা হয় যা তাদের ভাষাগত শেকড়ের সাথে সংযুক্ত হতে সহায়তা করেছে।

 

এই কুইজ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়েছেন ব্র্যাক বিজনেস স্কুলের মেজবাউল ইসলাম বিশাল, ডিপার্টমেন্ট অফ কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এর এমডি রিকুম হোসেন, শামিউর রহমান, মনীষা ভৌমিক, অর্ঘ্য প্রতিম অঙ্গন এবং আসিফ ইকবাল খান নুহাশ। শিক্ষক-কর্মকর্তাদের মধ্যে পুরস্কার জিতেছেন কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এর লেকচারার মির্জা মোহাম্মদ তাউসিফ শরীফ স্নিগ্ধ এবং অফিস অফ প্রক্টর এর জুনিয়র প্রক্টর মোহাম্মদ খালিদ আমিরুল ইসলাম।

 

কুইজ প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের অভিনন্দন জানান ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির ভারপ্রাপ্ত ভাইস-চ্যান্সেলর সৈয়দ মাহফুজুল আজিজ। তিনি তার বক্তব্যে বাংলা ভাষার প্রতি যত্নশীল হতে এবং আমাদের মাতৃভাষাকে আরো এগিয়ে নেবার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, “একজন বাংলাদেশি হিসেবে বাংলা ভাষা আমাদের পরিচয় এবং ঐতিহ্যের মূল স্তম্ভ। আমাদের ভাষা আন্দোলনের শহিদদের আত্মত্যাগকে সম্মান জানাতে হবে এবং আমাদের ভাষার যে সমৃদ্ধ ঐতিহ্য আছে সেটাকে ধরে রাখতে হবে। আমি বিশ্বাস করি, ‘বাংলা আমার অহংকার’ কুইজ প্রতিযোগিতা বাংলা ভাষার সেই সৌন্দর্য্য ও বৈচিত্র্যকে উদযাপনের একটি প্ল্যাটফর্ম হিসেবে কাজ করছে।”

 

কুইজ প্রতিযোগিতা ছাড়াও বিভিন্ন আয়োজনের মধ্য দিয়ে মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপদযাপন করেছে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি। এসব আয়োজনের মধ্যে ছিল বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীদের অংগ্রহণে কবিতা আবৃত্তি, সংগীত পরিবেশনা, নৃত্য প্রদর্শন এর সমন্বয়ে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। একুশে ফেব্রুয়ারির সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি প্রভাতফেরির আয়োজন করা হয়। এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে ১৯৫২ সালের বাংলা ভাষার অধিকার আদায়ে ভাষা আন্দোলনে জীবন উৎসর্গকারী বীর শহিদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।

 

ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি ভাষাগত বৈচিত্র্য ও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে এগিয়ে নিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। “বাংলা আমার অহংকার” ডিজিটাল কুইজ প্রতিযোগিতার মতো ইভেন্টগুলি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ সবার বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা এবং সচেতনতা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।

এমন আরো সংবাদ

Back to top button