জলবায়ু পরিবর্তনহাইলাইটস

যে কারণে বাংলাদেশে তাপপ্রবাহ বেড়েছে

trafic police dhyaka bangladeshবেশ কয়েক দিন ধরে প্রায় সারা দেশে গা পোড়ানো গরম। ঠা ঠা রোদে রাস্তার পিচ থেকে যেন আগুনের হলকা বের হচ্ছে। রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলার ওপর দিয়ে মৃদু থেকে তীব্র ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে চলছে। গতকাল শনিবার রাজধানীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪০.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা গত ৫৮ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। আর টানা ১৪ দিন দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হচ্ছে চুয়াডাঙ্গায়।গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল চুয়াডাঙ্গায়, ৪২.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা ৯ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, আজ রবিবার এবং আগামীকাল সোমবারও তাপমাত্রা বাড়ার এই প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে। মঙ্গলবার থেকে তাপমাত্রা কিছুটা কমার সম্ভাবনা থাকলেও তাপপ্রবাহ চলবে আরো কিছুদিন।
আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, ঢাকা, ফরিদপুর, মানিকগঞ্জ, পাবনা, বাগেরহাট, যশোর, চুয়াডাঙ্গা ও কুষ্টিয়া জেলার ওপর দিয়ে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। দেশের অন্যান্য অংশের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। আজ সারা দেশে অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশে আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। এ সময় সারা দেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে।আবহাওয়াবিদ খো. হাফিজুর রহমান জানান, দাবদাহ বছরের এই সময়ের বৈশিষ্ট্য। বৃষ্টি না হলে এই সময় তাপপ্রবাহ তৈরি হয়। এবার বৃষ্টিপাত কম হওয়ার কারণে তাপপ্রবাহ বেড়েছে। তাপপ্রবাহের সঙ্গে আর্দ্রতা বাড়ার কারণে মানুষের মধ্যে অস্বস্তি বেশি হচ্ছে। দু-তিন দিন ধরে বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ বেড়েছে। ফলে ভাপসা গরম অনুভূত হচ্ছে। রাতের তাপমাত্রাও কিছুটা বেড়েছে। কিন্তু এখন রাতের তাপমাত্রা ও বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ বেড়ে যাওয়ায় গরম বেশি অনুভূত হচ্ছে।আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, ৪ এপ্রিল থেকে শুরু হয়ে তাপপ্রবাহটি বাড়ছে। প্রথমে এটি রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের কিছু জায়গা থেকে শুরু হলেও ধীরে ধীরে এখন সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ছে। আবহাওয়াবিদরা জানান, একটা ভালো বৃষ্টি হলে এই তাপপ্রবাহ কমে যাবে।
বৃষ্টির পূর্বাভাস প্রসঙ্গে আবহাওয়াবিদ তরিফুল নেওয়াজ কবির  জানান, ২০-২১ এপ্রিলের দিকে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে বৃষ্টি হতে পারে। ক্রমান্বয়ে দেশের অন্যান্য অংশেও বৃষ্টি হতে পারে।

এমন আরো সংবাদ

Back to top button