দেশহাইলাইটস

বাংলাদেশিদের শ্রম বাজার বাড়াতে সহযোগিতার আশ্বাস কম্বোডিয়ার

বাংলাদেশিদের শ্রম বাজার বাড়াতে সহযোগিতার আশ্বাস কম্বোডিয়ারকম্বোডিয়ার সঙ্গে সে দেশে বিদেশি শ্রমিক নিয়োগের কোটা অনুমোদন, ওয়ার্ক পারমিট, শ্রমিক স্বাস্থ্য সেবা এবং সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার বিষয়ে আলোচনা করেছে বাংলাদেশ। মঙ্গলবার (৩১ মে) দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের অনাবাসিক রাষ্ট্রদূত আব্দুল হাই কম্বোডিয়ার শ্রম ও কারিগরী প্রশিক্ষণ বিষয়কমন্ত্রী ইথ স্যামহেংর সঙ্গে সাক্ষাতকালে এই আলোচনা করেন। এ সময় তাদের মধ্যে দু’দেশের শ্রম বাজার, শ্রমিকদের সমস্যাসহ পরবর্তী করণীয় নিয়ে আলোচনা হয়। কম্বোডিয়ার মন্ত্রী সেখানে কর্মরত প্রায় ৪০০ বাংলাদেশির কর্মকাণ্ডের জন্য ধন্যবাদ জানান। বুধবার ( ১ জুন) থাইল্যান্ডের বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। সাক্ষাতকালে রাষ্ট্রদূত স্বাক্ষরিত শ্রম ও কারিগরী প্রশিক্ষণ বিষয়ক সমঝোতা স্মারক অনুযায়ী গঠিত ওয়ার্কিং গ্রুপের বাংলাদেশে অনুষ্ঠিতব্য দ্বিতীয় সভার অংশ নেওয়ার জন্য কম্বোডিয়ার শ্রম ও কারিগরী প্রশিক্ষণ বিষয়ক মন্ত্রণালয়কে আমন্ত্রণ জানান। এ সময় তিনি কম্বোডিয়ার মন্ত্রীকে বাংলাদেশের প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রীর পক্ষে ঢাকায় দ্বিপাক্ষিক সফরের আমন্ত্রণ বার্তা পৌঁছে দেন। তিনি কোভিড মহামারি চলাকালে কম্বোডিয়ায় অবস্থানরত বাংলাদেশিদের প্রয়োজনীয় টিকা দেওয়ার সুব্যবস্থার জন্য সে দেশের সরকারকে ধন্যবাদ জানান।

এরপর রাষ্ট্রদূত দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য সম্প্রসারণ এবং দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য বৃদ্ধির জন্য কম্বোডিয়ার ব্যবসায়ীদের অন্যতম প্রধান সংগঠন কম্বোডিয়ান চেম্বার অব কমার্সের মহাপরিচালক ওখনা নগুন মেংটেকের সঙ্গে বৈঠক করেন। এ সময় তিনি দুই দেশের চেম্বারের মধ্যে ২০১৭ সালে স্বাক্ষরিত সমঝোতা স্মারক বাস্তবায়নের প্রতি গুরুত্ব আরোপ করেন।

এছাড়া রাষ্ট্রদূত  কম্বোডিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আসিয়ান বিষয়ক দপ্তরের সেক্রেটারি অব স্টেট ইট সোফিয়ার সঙ্গে তার কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করেন। তিনি দুই দেশের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের বিভিন্ন বিষয়ে আলোকপাত করেন এবং আসিয়ানের নতুন মহাসচিব হিসেবে কম্বোডিয়া দায়িত্বভার গ্রহণ করায়  অভিনন্দন জানান। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে  নতুন দায়িত্বভার গ্রহণ করায় বাংলাদেশের আসিয়ান সেক্টরাল ডায়লগ পার্টনার হওয়ার প্রস্তাবটি বিবেচনার ক্ষেত্রে কম্বোডিয়া অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে। দুই কূটনীতিক কম্বোডিয়ায় জুলাই এর শেষ দিকে অনুষ্ঠিতব্য আসিয়ান সম্মেলনে সংস্থার আঞ্চলিক ফোরামের সভায় বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর অংশগ্রহণের প্রস্তুতি নিয়ে কথা বলেন।

এর আগে ৩০ মে স্থানীয় হোটেলে রাষ্ট্রদূত কম্বোডিয়ায় বসবাসরত বাংলাদেশি ব্যবসায়ী নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করেন। সভায় কম্বোডিয়ায় বাংলাদেশি ওষুধ ব্যবসায়ী, গার্মেন্টস ব্যবসায়ী, ব্যাংকার, মানব সম্পদ রপ্তানিকারকসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রের ব্যবসায়ী নেতাদের তাদের সমস্যা, দূতাবাসের কাছে সহযোগিতাসহ বিভিন্ন বিষয়ে রাষ্ট্রদূতের কাছে তুলে ধরেন।

বৈঠকসমূহে দূতাবাসের ইকনোমিক মিনিষ্টার সৈয়দ রাশেদুল হোসেন, কাউন্সেলর (রাজনৈতিক) নির্ঝর অধিকারী এবং প্রথম সচিব (শ্রম) ফাহাদ পারভেজ বসুনিয়া উপস্থিত ছিলেন।

এমন আরো সংবাদ

Back to top button